Sharing is caring!

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সংস্কৃত বিভাগের শিক্ষার্থী তাপস সরকারের স্মরণে ‘শহীদ তাপস স্মৃতি সংসদ’ নামে একটি সংগঠনের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে। পরে সংগঠনের ৯২ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠিত হয়।

আগামী ১ বছরের জন্য গঠিত এই কমিটির প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল, আহ্বায়ক মো. শফিকুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. শফিকুল ইসলাম ও সদস্য সচিব হিসেবে রয়েছেন মাহিম আদনান সৈকত।

এই কমিটিতে ১৪ জন উপদেষ্টা, ৪০ জন যুগ্ম আহ্বায়ক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় সবকয়টি হল থেকে ৩৮জনকে সাধারণ সদস্য করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সংগঠনটির আহ্বায়ক মো. শফিকুল ইসলাম আলোকিত বাংলাদেশ অনলাইনকে বলেন, আমরা যখন ক্যাম্পাসে আসি তখন প্রকাশ্য দিবালোকে তাপসের খুন দেখি। কিন্তু এতদিন পেরিয়ে গেলেও সেই হত্যার বিচার হয়নি। আমরা তাপস সরকার হত্যার সুষ্ঠ বিচার নিশ্চিতে ও তাপসের স্মরণে এই সংগনটি গঠন করেছি।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ১৪ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) বুদ্ধিজীবী চত্বরে ফুল দেওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই হলে ছাত্রলীগের শাটল ট্রেনের বগিভিত্তিক দুই সংগঠন ভিএক্স ও সিএফসি’র কর্মীদের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান সংস্কৃত বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষর্থী তাপস।

Sharing is caring!

https://i0.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2019/09/চবিতে-‘নিয়ম-না-মেনে’-সিন্ডেকেট-সভা-আহ্বানের-অভিযোগ.jpg?fit=750%2C422&ssl=1?v=1569607891https://i2.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2019/09/চবিতে-‘নিয়ম-না-মেনে’-সিন্ডেকেট-সভা-আহ্বানের-অভিযোগ.jpg?resize=150%2C150&ssl=1?v=1569607891culiveক্যাম্পাসপলিটিক্সশহীদ তাপসচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সংস্কৃত বিভাগের শিক্ষার্থী তাপস সরকারের স্মরণে 'শহীদ তাপস স্মৃতি সংসদ' নামে একটি সংগঠনের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে। পরে সংগঠনের ৯২ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠিত হয়। আগামী ১ বছরের জন্য গঠিত এই কমিটির প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল, আহ্বায়ক মো. শফিকুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. শফিকুল...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University