পূর্ব ঘটনার জের ধরে ফের সংঘর্ষে জড়িয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের নেতা-কর্মীরা। বিবাদমান গ্রুপ দুইটি হলো- শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যরিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী সিএফসি ও বিজয়। এতে ৬ জনকে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার (০২ এপ্রিল) দুপুর ৩ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহ আমানত হলের সামনে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।  আটককৃতরা হলেন- উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ইয়াসিন আরাফাত কাইসার, ইংরেজি বিভাগের ১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের বেলাল হোসেন, ইতিহাস শিক্ষাবর্ষের ১৬-১৭ অমিত রায়, সিফাত উল্লাহ সরকার, খালেদ মাসুদ, সাকিব হাসান।

সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দুপুর দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আব্দুর রব হলের মাঠে খেলতে গেলে বিজয় গ্রুপের দর্শন বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের আবু বক্করকে মারধর করে সিএফসি গ্রুপের কর্মীরা। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিজয় গ্রুপ সোহরাওয়ার্দী হল এবং সিএফসি গ্রুপ শাহ আমানত হলের সামনে অবস্থান নেয়। পরবর্তীতে এক পর্যায়ে তার সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় উভয় পক্ষ ব্যাপক ইট পাটকেল ছোড়াছুড়ি করে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিজয় গ্রুপের নেতা ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর জীবন ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘সিএফসি গ্রুপের নেতাদের ছাত্রত্ব নাই। তারা ইচ্ছাকৃতভাবে আমাদের নেতা নওফেল ভাইয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য এই ঘটনাগুলো ঘটাচ্ছে।’

তবে এ বিষয়ে সিএফসি গ্রুপের কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। একাধিক নেতাকে মুঠোফোনে কল দিয়েও সাড়া পাওয়া যায় নি।

এ বিষয়ে হাটহাজারি মডেল থানার ওসি বেলাল উদ্দীন জাহাঙ্গীর ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। আমরা ঘটনাস্থল থেকে ৬ জনকে আটক করি। পরিস্থিতি বর্তমানে আমাদের নিয়ন্ত্রণে।’

এ দিকে সোমবার (১ এপ্রিল) মধ্যরাত থেকে ভোর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি আবাসিক হলে তল্লাশি চালিয়ে দুটি আগ্নেয়াস্ত্র, ১২৬ রাউন্ড গুলি এবং রামদা উদ্ধার করেছে পুলিশ। তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ। বিষয়টি ব্রেকিংনিউজকে নিশ্চিত করেছেন হাটহাজারী মডেল থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় রাতে একযোগে পাঁচটি আবাসিক হলে তল্লাশি চালানো হয়েছে। এতে আলাওল হলের ক্যান্টিনের পেছন থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় দুটি এক নলা বন্দুক, থ্রি নট থ্রি বন্ধুকের ১২৬ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে। তাছাড়া হলের বেশ কয়েকটি আবাসিক কক্ষ থেকে ১২টি রামদা, রড ও বিপুল পরিমাণ লাঠিসোটাও উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কাউকে আটক করা হয়নি।’

https://i1.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2019/04/99156_cu.jpg?fit=600%2C340&ssl=1https://i2.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2019/04/99156_cu.jpg?resize=150%2C150&ssl=1culiveক্যাম্পাসপলিটিক্সচবি,চবি ছাত্রলীগ,মারামারিপূর্ব ঘটনার জের ধরে ফের সংঘর্ষে জড়িয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের নেতা-কর্মীরা। বিবাদমান গ্রুপ দুইটি হলো- শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যরিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী সিএফসি ও বিজয়। এতে ৬ জনকে আটক করা হয়। মঙ্গলবার (০২ এপ্রিল) দুপুর ৩ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহ আমানত হলের সামনে সংঘর্ষের সূত্রপাত...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University