Roof view of Shahjalal Hall

 

 

 

 

 

 

২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি
পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী প্রিয়
ছোট ভাই ও বোনেরা, প্রথমেই
তোমাদেরকে শুভকামনা
জানাচ্ছি। তোমরা যারা এবছরে
চবিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ
করতে আসতেছো তারা কিন্তু
শেষবারের মতো সুযোগ পাচ্ছো এই
কথাটি একদম ভূলে যাবেনা। কারণ,
ইতিমধ্যেই চবি প্রশাসন পরবর্তী বছর
থেকে সেকেন্ড টাইমারদের ভর্তি
পরীক্ষা না নেয়ার সিদ্ধান্ত
জানিয়ে দিয়েছে। সুতরাং
সাবধান, একবার সুযোগ হাতছাড়া
হয়ে গেলে চিরদিনের জন্য চবিতে
ভর্তি হওয়ার সুযোগ মিস হয়ে
যাবে। তাই সবার আগে মনোবলকে
মজবুত করো। ইতিমধ্যেই তোমরা
হয়তোবা জেনে গেছো এবছরে
চবিতে প্রতি আসনের বিপরীতে ৫১
জন করে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রদেয় তথ্য
মোতাবেক এবছর ২ লাখ ৪৪
হাজারের কিছু বেশি আবেদন জমা
পড়েছে যা চবির ইতিহাসে রেকর্ড
সংখ্যক। কাজেই আবারো বলছি,
ফার্স্ট টাইমার কিংবা সেকেন্ড
টাইমার বলে কোনো কথা নেই এটই
প্রথম, এটাই শেষ। যেদিন যে
পরীক্ষা দেবে সেটাই তোমার
শেষ পরীক্ষা এই কথাটা মনে
রাখবে।
আমার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা
থেকে বলছি চবিতে অনেক ছেলে-
মেয়ে ব্যর্থ হয়ে ফিরে যায় শুধুমাত্র
পাস করতে না পারার কারণে।
অনেকেকই দেখেছি অন্য বিষয়ে
তুখোড় নম্বর তোলার পরেও খাতা
বাতিল হয়ে যায় শুধুমাত্র একটি
বিষয়ে ফেইল করা কারণে।
পরীক্ষার হলে সবাই শুধু বেশি
বেশি নম্বর তোলায় ব্যস্ত থাকে,
অথচ পাস করার চিন্তা ছেলে-
মেয়েদের মাথায় থাকে কিনা
আমি বুঝিনা। সবাইকে বলছি,
পরীক্ষার হলে ঢোঁকার আগেই
মাথায় গেঁথে নিতে হবে কোন
বিষয়ে তুমি কতটি প্রশ্ন উত্তর করবে।
তোমার টার্গেট যদি হয়
ইংরেজিতে ৩০ টির মধ্যে ১৪ টি
প্রশ্ন, তাহলে ১৪ টি নির্ভূল উত্তর
হয়ে গেলে বাকি প্রশ্নের উত্তর
করে ঝুঁকি বাড়ানোর দরকার নেই।
তবে এর থেকে বেশি প্রশ্ন যদি
তোমার কমোন থেকে থাকে তবে
বোনাস মার্কস হিসেবে সেটাও
সাদরে দাঁগিয়ে দাও। এক্ষেত্রে
মনে রাখবে ৬০-৭০% প্রশ্নের উত্তর
করতে পারলেই তুমি চবিতে
যেকোনো ইউনিটে চান্স পাওয়ার
যোগ্যতা রাখো। চবিতে প্রশ্ন খুব
বেশি জটিল করা হয় তাই আবারো
বলছি, সাবধান। ভূল উত্তর গুলো অবশ্যই
এড়িয়ে যেতে হবে। তোমার একটি
ভূল উত্তর অন্যদের তলনায় তোমাকে
১.২৫ স্কোর পিঁছিয়ে দেবার জন্যই
যথেষ্ট। মনে রাখবে, ৬০ মিনিটে
১০০ টি প্রশ্নের উত্তর করতে যতখানি
সময় ব্যয় লাগে, একই সময়ে ৬০-৭০ টি
প্রশ্নের উত্তর করা কিন্তু অনেক
বেশি সহজ। অর্থ্যাৎ অল্প প্রশ্নে
কাজ হলে বেশি প্রশ্ন উত্তর করার
দরকার নেই। যারা ভর্তি পরীক্ষায়
প্রথম হতে চায় তাদের উদ্দেশ্যে
বলছি, ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হলে
চবি তোমায় গোল্ড মেডেল
দেবেনা। আর যারা ভালো
সাবজেক্ট পাওয়া নিয়ে গান রচনা
করে ফেলেছে তাদের বলছি,
তোমার হয়তোবা ভালো লাগা
না লাগা থাকতেই পারে। তাই
বলে তুমি এই সাবজেক্ট, সেই
সাবজেক্ট, ওয়াক থু…ব্লা,,ব্লা,,এসব
বলতে পারোনা। চান্স পেলে
তবেই তোমার মুখে সবকিছু
মানাবে। আমরাও সাগ্রহে শুনবো।
বাংলাদেশে সাংবাদিক হতে
গেলে সাংবাদিকতা বিভাগে
পড়তে হয়না, এডভোকেট হতে
চাইলে ল’তে গ্রাজুয়েট হতে হবে
এমনটিও নয়, এদেশের কম্পিউটার
কাউন্সিলের নির্বাহী প্রধান
হতে গেলেও ইঞ্জিনিয়ার হতে
হয়না। ব্যাংকে চাকরি করতে
গেলে যে ইসলামের ইতিহাস,
পালি পড়তে হয়না এমন নজির
বাংলাদেশে এখনো চোখে
পড়েনি। কাজেই এখনো সময় আছে,
তোমার আজাইরা চিন্তা বাদ
দিয়ে একটা চান্স লুফে নাও।
এমনতো হতে পারে চান্স পাওয়ার
পর মাইগ্রেশন করে তোমার
কাঙ্খিত সাবজেক্টাই পেয়ে
গিয়েছো!!
তাই এক্ষুণি গুঁছিয়ে ফেলো
নিজেকে। আমরা চবিয়ানরা
তোমাদের বরণ করে নিতে প্রস্তুত
হয়ে আছি। তোমাদেরকে
পাহড়ঘেরা চবি ক্যাম্পাসে
অভিনন্দন রইলো।
Hasan Fuad
Department of Sociology
University of Chittagong.

culiveউদ্দীপনাকিছু কথা            ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী প্রিয় ছোট ভাই ও বোনেরা, প্রথমেই তোমাদেরকে শুভকামনা জানাচ্ছি। তোমরা যারা এবছরে চবিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে আসতেছো তারা কিন্তু শেষবারের মতো সুযোগ পাচ্ছো এই কথাটি একদম ভূলে যাবেনা। কারণ, ইতিমধ্যেই চবি প্রশাসন পরবর্তী বছর থেকে সেকেন্ড টাইমারদের ভর্তি পরীক্ষা না নেয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছে। সুতরাং সাবধান, একবার সুযোগ হাতছাড়া হয়ে গেলে চিরদিনের জন্য চবিতে ভর্তি হওয়ার সুযোগ মিস...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University