চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্নে অনুষ্ঠিত করতে ক্যাম্পাসে নেয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তা। শুধুমাত্র ক্যাম্পাসের সার্বিক নিরাপত্তা রক্ষায় মোতায়েন থাকবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ৭০০ জন পোষাকধারী সদস্য।

এছাড়াও বিভিন্ন সংস্থার বিপুল পরিমান সদস্য সাদা পোষাকে নিয়োজিত থাকবে। যার মধ্যে রয়েছে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ (এসবি), ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চ (ডিবি), ডিজি এফআই, এনএসআই ও র‍্যাবের সদস্য।

শুক্রবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে ভর্তি পরিক্ষায় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সার্বিক বিষয়ে সাংবাদিকদের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী বলেন, ভর্তি পরিক্ষার সময় ক্যাম্পাসের সার্বিক নিরাপত্তা, জালোয়াতি রোধে তারা কাজ করবে। কোন অবস্থাতেই পরিক্ষা শুরু হওয়ার পর কোন পরীক্ষার্থীকে হলে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

এসময় তিনি আরো বলেন, পরীক্ষার হলে প্রবেশ পত্র প্রদর্শন করে শুধুমাত্র পরীক্ষার্থীরাই ডুকতে পারবে। এছাড়া অন্য কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। পরীক্ষার হলে দ্বায়িত্বরত অবস্থায় যে সকল শিক্ষক থাকবেন, তারা পরীক্ষার হলে মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন না।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, যদি কেউ কোন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে হয়রানি বা র‍্যাগ দেয় তবে প্রমাণ সাপেক্ষে তাকে বহিষ্কার করা হবে। এবার ভর্তি পরীক্ষায় ছবি সত্যায়িত করা লাগবে না। সত্যায়িত ছাড়াই শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারবেন। প্রবেশপত্রে সত্যায়িত করার নির্দেশনা থাকলেও শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগের কথা বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

এসময় আরো জানানো হয়, পরীক্ষার্থীদের বহনকারী গাড়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১নং গেইট দিয়ে প্রবেশ করে ২নং গেইট দিয়ে বের হয় যাবে। তবে কেউ যদি ক্যাম্পাসে গাড়ী রাখতে চায়, তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে পার্কিং করতে পারবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে যেসকল খাবারের দোকান থাকবে সেখানে প্রশাসন কর্তৃক নির্ধারিত মূল্য তালিকা ঝুলানো থাকবে। কেউ এ মূল্য তালিকার বাহিরে অতিরিক্ত মূল্য নিতে পারবে না।

ঢাকা, ২৬ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

culiveক্যাম্পাসচবিরচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্নে অনুষ্ঠিত করতে ক্যাম্পাসে নেয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তা। শুধুমাত্র ক্যাম্পাসের সার্বিক নিরাপত্তা রক্ষায় মোতায়েন থাকবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ৭০০ জন পোষাকধারী সদস্য। এছাড়াও বিভিন্ন সংস্থার বিপুল পরিমান সদস্য সাদা পোষাকে নিয়োজিত থাকবে। যার মধ্যে রয়েছে পুলিশের স্পেশাল...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University