বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৪.০০ টার ট্রেন ছেড়ে তা ক্যান্টনমেন্টে পৌছানোর কথা ৪ টা ২০-২৫ মিনিটের দিকে, ঠিক ৪.০৫ মিনিটে আরেকটা ট্রেন ছেড়ে আসার কথা ষোলশহর স্টেশন থেকে যেটা ৫.৩০ টার ট্রেন হিসেবে ছাড়বে উভয় ট্রেন ৪ টা ২৫-৩০ মিনিটের দিকে ক্যান্টনমেন্টে একে অপরকে ক্রস করবে সিঙ্গেল লাইনের জন্য।

আজ ৪ টার ট্রেন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৪.১২ মিনিটে ছেড়ে ৪.৩০ মিনিটে ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে পৌছায়। পৌছে দেখা যায় অপর দিক থেকে ৪ টা ২৫-৩০ মিনিটের মধ্যে যে ট্রেন এসে দাড়িয়ে থাকার কথা সেটা আসেনি তাই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছেড়ে যাওয়া ৪ টার ট্রেন কে ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে প্রায় ৪.৫২ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করিয়ে অপর দিকের ট্রেন আসলে তখন ছাড়া হয়। যেখানে ৪ টা ৪০-৪৫ মিনিটের মধ্যে ষোলশহর পৌছানোর কথা সেখানে পৌছালাম ৫ টা ১০ মিনিটে।

কি এক অজানা কারনে আজ হাঁটা শুরু করলাম স্টেশন মাস্টারের রুমের দিকে, সালাম দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে জিজ্ঞাসা করলাম বর্তমানে কে কন্ট্রোলিং এর দায়িত্বে আছেন? এক ভদ্রলোক বললেন হ্যাঁ, সহকারী মাস্টার হিসেবে আমি আছি। বললাম কি সমস্যা আপনাদের? এই যে ৪.০৫ এর ট্রেন এতো লেট যখন ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে একটা সিগন্যাল দিলেন না কেন শুধু শুধু আমরা সেখানে ৪.৩০ থেকে ৪.৫২ অযথা দাঁড়িয়ে আছি, এতো গুলো শিক্ষার্থীর কি সময়ের মূল্য নায়?

তখন তো তো করে বলে আমাদের যখন লেট তখন ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন তো ছেড়ে দিলে তো পারতো, আমি বললাম আপনারা সিগনাল না পাঠালে কিভাবে ছাড়বে ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন? তখন পাশে থাকা আরেকজন ব্যাখ্যা দিল, যে স্টেশনে ট্রেন আগে এসে অপেক্ষা করবে এবং বিপরীত দিকের ট্রেন সময়মত না আসলে অপেক্ষমান স্টেশন থেকে বিপরীত স্টেশনে সিগন্যাল সম্পর্কিত খোঁজ নিতে হবে। আমি বললাম আপনি সিউর তো? যথাসময়ে ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন মাস্টারকে ধরা হবে। বললো আচ্ছা ঠিক আছেন ধরেন।

এখন কথা হচ্ছে স্টেশনের দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের অবহেলার কারনে আমরা ভোগান্তির শিকার, আমাদের প্রায় প্রায় দাঁড় করিয়ে রাখে। কিন্তু আর কত দিন? সহ্যের, তো সীমা আছে একটা? আর নির্বোধ কতকগুলো পুলিশ দিয়ে রাখে এদের কাজ কি? ছেলেটির পা কাটার পর কয়দিন খুব দায়িত্ব পালন চলেছে, এখন শেষ?
*কোথায় ১২ বগি?
*কোথায় সুষ্ঠু তদারকি?
*কোথায় ডাবল লাইন?
শুধুমাত্র স্টুডেন্টদের বিবেক জাগ্রত হওয়ায় সীট ধরার প্রবনতা কমে গেছে প্রায়।

এই লাইন দিয়ে কয়টা ট্রেনই বা চলে? স্টেশন মাস্টারের অবহেলা এবার শায়েস্তা করার সময়, প্রথমত #চবি_প্রশাসনের হস্তক্ষেপ এর আশায় অন্যথায় ছাত্রদের মাঠে নেমে নিজ অধিকার প্রতিষ্ঠা করে নেওয়ায় শ্রেয়৷ ছাত্র সংগঠনের নেতারায় পারে উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে, সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য কিছু তো করুন।

http://culive24.com/wp-content/uploads/2016/10/Chittagong_University_Shuttle_train_05-1-1024x682.jpghttp://culive24.com/wp-content/uploads/2016/10/Chittagong_University_Shuttle_train_05-1-150x150.jpgculiveক্যাম্পাসট্রেনবিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৪.০০ টার ট্রেন ছেড়ে তা ক্যান্টনমেন্টে পৌছানোর কথা ৪ টা ২০-২৫ মিনিটের দিকে, ঠিক ৪.০৫ মিনিটে আরেকটা ট্রেন ছেড়ে আসার কথা ষোলশহর স্টেশন থেকে যেটা ৫.৩০ টার ট্রেন হিসেবে ছাড়বে উভয় ট্রেন ৪ টা ২৫-৩০ মিনিটের দিকে ক্যান্টনমেন্টে একে অপরকে ক্রস করবে সিঙ্গেল লাইনের জন্য। আজ ৪...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University