সাম্প্রতিক সময়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের কথা প্রায় সবাই জানে।অনেকে এই আন্দোলনকে অনেকভাবে ব্যাখ্যা করেছেন।অনেকে অনেকরকম মন্তব্য করে বিতর্কিত হয়েছে,আবার অনেকে প্রশংসিত হয়েছে। যারা আন্দোলনের বিরোধিতা করেছেন তাদের সমালোচনার মূল লক্ষ্য ছিল “আমি রাজাকার” লিখা প্ল্যাকার্ড। কিন্তু ছাত্ররা কেন এই লিখাটি বুকে পিঠে লিখে রাস্তায় নামল সেই ইতিহাস জানার প্রয়োজন মনে করেননা সমালোচকরা।একটু ভাবুনতো শুধুমাত্র কোটা সংস্কার করার জন্য এতগুলো ছাত্র কি কখনো আন্দোলনে নামত???
আমার বিশ্বাস হয়না,এর কারণ আমরা যারা ছাত্র তারা বলতে গেলে এখনও কোটার কারণে সেইরকম কোন বৈষম্যের স্বীকার হইনি।মানূষের স্বাভাবিক ধর্ম হচ্ছে নিজে ক্ষতিগ্রস্ত না হলে কখনো কোন জোরালো আন্দোলনে নামেনা
এই যে হাজার হাজার তরুণ রাস্তায় নেমেছে তারা খুব ভালো করেই জানে বাংলাদেশের মত নিয়োগ-বাণিজ্যের দেশে কোটা সংস্কার হলেও চাকরি পাবেনা। অনেকগুলো বিষয় এই আন্দোলনে অণুঘটক হিসেবে কাজ করেছে।
প্রথমত বিভিন্ন আবাসিক হলগুলোতে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের উপর চলমান নির্যাতন।নির্যাতনকারীরাও আবার তার মত দেখতে একজন ছাত্র,শুধু তার বিশেষত্ব তার দলীয় ট্যাগ আছে, যার কারণে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্ষোভ প্রকাশের জায়গা ছিল এই আন্দোলন
দ্বিতীয়ত হতাশা,বর্তমানে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হচ্ছে এমন অধিকাংশ তরুণ -তরুণী হতাশ তারা জানেনা তাদের ভবিষ্যৎ কি,তারা পড়ালেখা শেষে কি করবে।তার উপর যখন দেখে তার চেয়ে কম মেধাবী শুধুমাত্র মামার জোরে, কোটার জোরে,ঘুষের জোরে চাকরি পেয়ে যায় স্বাভাবিকভাবে তখন সব ক্ষোভ গিয়ে পড়ে কোটার উপর।দেশে যদি পর্যাপ্ত কর্মসংস্থান থাকত তাহলে কখনো এই কোটা আন্দোলন এতটা চরম রূপ ধারণ করতনা।কিন্তু আমাদের সরকার, বুদ্ধিজীবীরা এত কিছু চিন্তা না করে তরুণদেরকে দোষারোপ করেই তাদের দায়িত্ব শেষ মনে করতেছে।বার বার তরুণদের ক্ষোভ দমন করার চেষ্টা করতেছে তাদেরকে স্বাধীনতা বিরোধীসহ বিভিন্ন ট্যগ দিয়ে।
আচ্ছা নিরপেক্ষভাবে ভাবুন যেই তরুণ “আমি রাজাকার”প্ল্যাকার্ড বুকে পিঠে লিখে রাস্তায় নেমেছে সে আদৌ রাজাকার শব্দটাকে কি নিজেকে স্বাধীনতা বিরোধী হিসেবে প্রকাশ করার জন্য নাকি নিজের ক্ষোভ প্রকাশের জন্য??
অন্যভাবে ভাবুন এই রকম একটি ঘৃণ্য শব্দ বুকে পিঠে লিখে রাস্তায় নামার পরও লাখ-লাখ তরুণ বিরোধিতা না করে তাতে জোরালো সমর্থন করেছে তার জন্য দায়ী কারা???
এই লিখা কি একটা অশনি

culiveক্রাইম এন্ড "ল"রাজাকারসাম্প্রতিক সময়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের কথা প্রায় সবাই জানে।অনেকে এই আন্দোলনকে অনেকভাবে ব্যাখ্যা করেছেন।অনেকে অনেকরকম মন্তব্য করে বিতর্কিত হয়েছে,আবার অনেকে প্রশংসিত হয়েছে। যারা আন্দোলনের বিরোধিতা করেছেন তাদের সমালোচনার মূল লক্ষ্য ছিল 'আমি রাজাকার' লিখা প্ল্যাকার্ড। কিন্তু ছাত্ররা কেন এই লিখাটি বুকে পিঠে লিখে রাস্তায় নামল সেই ইতিহাস...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University