ধর্ষণ!!!! সারা দূনিয়াতে এক মহামারি হিসাবে দেখা দিয়েছে,বর্তমান সময়ে পত্রিকার শুরু থেকে শেষ পৃষ্ঠা অবধি ধর্ষণের নিউজ ভরা। কত জ্ঞানী গুণিও গজাইসে এ বিষয় নিয়ে নিজেদের মতামত জ্ঞাপন করতে।নিজেকে সেই লেভেলের বুদ্ধিজীবীও ভাবে। পত্রিকা, টিভি,সোশ্যাল মিডিয়াতে মাতামাতিও কম হয় না। এটাকে উপলক্ষ কইরা বুদ্ধিজীবীরা দু ভাগে ভাগ হয়ে গেসে।একভাগ কয়,দোষটা হইলো ভিক্টিমের পোষাক।আরেকদল কয় দোষটা ধর্ষকের মন মস্তিষ্কের।হুনেন ভাই-ব্রাদার আপনারা যে দুইটা মত দিসেন দুইটায় ঠিক আছে।তবে যে কোন একটা কারণ একচেটিয়া নয়। সময়ের সব কেস গুলো স্ট্যাডি করলে দেখা যাবে এই ধর্ষণের জন্য যেমন ধর্ষকের মন মস্তিষ্ক দায়ী।তেমনি পোষাকও কোন ক্ষেত্রে কম না!! থান্ঠা মাথায় বলি?? সারাদিন pronhub এ ডুবে থাকেন।আর মাথায় খালি এগুলায় ঘুরে।পথে,ঘাটে,বাসে,ট্রেনে মাইয়য়া দেখলে আউট হয়ে যায়।ভাবেন এই বুজি আমায় ডাকছে। আর কিছু হলে চিল্লান পোষাক!!! পোষাক!! পোষাক!! আরে ভাই! নিজের মন মানসিকতা বদলান।ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলুন।দেখবেন আর চিল্লাইতে হবে না।

 

আপনি ঠিকতো দুনিয়া ঠিক। খুব আবেগ লইয়া বলেন এই মৌলবাদী সমাজে মেয়েদের ক্ষমতা কুক্ষিগত করা হয়েছে।তারা যেমন ইচ্ছা তেমন পোষাক পড়বে।এটা তাদের অধিকার।।ওয়াহ!!ভীড়ের মধ্যে আটোসাটো পোষাক পড়া রমণীর স্পর্শকাতর জায়গায় আপনারই টিপে দেন।আর টকশোতে বয়ান দেন পোষাক কোন ফ্যাক্ট না।নারীদেহ একটু খানি শরীরের সাথে ঘষা খেলে আপনাগো চেতনা খাড়ায় যায়।আবার চিৎকার কইরা বলেন আপনাকে hot লাগতাসে।বান্ধুবীকে বলেন জানিস তোরে এই পোষাকে sexy লাগতাসে!! ক্যান ভাই??? প্রশংসা করার আর শব্দ নাই?লেকচার মারেন পোষাকে আমাদের খাড়ায় না। যতদিন মন-মানসিকতার পরিবর্তন এর সাথে শালীন পোষাকের আবর্তন নাহবে, ততদিন সমাজে এই ধর্ষণ নামক মহামারি থাকবে। কথাগুলো অলস মস্তিষ্ক থেকে বের হওয়া কোন কথা নয়।বাস্তব জিবনে চলার পথে আশপাশের মানুষদের আচারণ দেখা অভিজ্ঞতা থেকে বলেছি.. ® খানে খানান চ.বি.

https://i2.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2018/04/Rap.gif?fit=700%2C400https://i2.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2018/04/Rap.gif?resize=150%2C150culiveক্রাইম এন্ড "ল"ধর্ষণধর্ষণ!!!! সারা দূনিয়াতে এক মহামারি হিসাবে দেখা দিয়েছে,বর্তমান সময়ে পত্রিকার শুরু থেকে শেষ পৃষ্ঠা অবধি ধর্ষণের নিউজ ভরা। কত জ্ঞানী গুণিও গজাইসে এ বিষয় নিয়ে নিজেদের মতামত জ্ঞাপন করতে।নিজেকে সেই লেভেলের বুদ্ধিজীবীও ভাবে। পত্রিকা, টিভি,সোশ্যাল মিডিয়াতে মাতামাতিও কম হয় না। এটাকে উপলক্ষ কইরা বুদ্ধিজীবীরা দু ভাগে ভাগ হয়ে গেসে।একভাগ...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University