খোদার কসম আমাদের শোভাকলোণীতে শুক্কুর কাক্কুর ছেলে শ্রীলংকার সাথে মাহমুদুল্লাহ ছয় হাঁকিয়ে ম্যাচ জিতার পর এমন লাফ দিয়েছে যে দুটা আঙ্গুল ভেঙ্গে ফেলেছে,
.
সেটা বড় কথা না,
.
নিজের আঙ্গুল ভেঙ্গে যাওয়ার পরও সে ইনজুরি নিয়ে খুশি মনে হাসতে হাসতে মেডিকেল গিয়েছে!
.
আজ সকালে সেই বাবা বাংলাদেশের খেলা নিয়ে তার ছেলের কান্ড সূচক গল্পটি করছিলো
.
সেদিন রক্ষণশীল পরিবারের নতুন বউ চিক্কুর দিয়ে লাফ দেওয়ার পর লজ্জায় আড়চোখে শ্বশুরের দিকে তাকালো,
.
কথা সেটা না,
.
শ্বশুর আব্বাও জয়ের আনন্দে আত্মহারা!
.
কেডিএস এক্সেসোরিজের কলিগের ভাই দীর্ঘদিন কোমায় ছিলো, কিছুদিন আগে মারা গেছেন
.
কথা সেটা না,
.
আজ তিনি আপসোস করে বলছেন ভাই বেঁচে থাকলে ঠিক ছক্কা মারার এই মুহূর্ত কোন রকমে ভাইকে দেখানো গেলে তিনিও হয়তো কোমা ভেঙ্গে জেগে উঠতেন!
.
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যে ভাইটি গতকাল বলছিলো এক সপ্তাহ ধরে তার প্রেমিকা ফোন রিসিভ করছে না!
.
কথা সেটা না,
.
সে ও আফসোস করছে, চরম সুযোগ মিস্ হয়ে গেলো! ঠিক ঐ মুহূর্তে ফোন করলে সকল রাগ অনুযোগ অভিমান বিবেদ ভুলে মেয়েটির ‘হ্যালো শুনছি’ কন্ঠ ভেসে উঠতো!
.
দীর্ঘদিন আওয়ামী লাগ এবং বিএনপি সংলাপে বসার জন্য এদিক ওদিক সেদিক ভেবে বারবার পিছিয়ে যাচ্ছে!
.
কথা সেটা না,
.
ঐ মুহূর্তেটি কাজ লাগিয়ে কোন পক্ষ সংলাপ প্রস্তাব দিলে হয়তো কাজ হয়ে যেতো!
.
ম্যাচের সেই মুহূর্তে অ্যাম্পায়ারের পক্ষপাতিত্বের কারণে বাংলাদেশ খেলবো না বলে ম্যাচ পরিত্যাগ করতে চেয়েছিলো!
.
তারপরও খেলা চালিয়ে যাওয়া ছিলো ক্রিকেট ইতিহাসের যুগান্তকারী সিন্ধান্ত,
.
আর খেলবো না বলে ও খেলে দেওয়া যায়!
.
এভাবে খেলে দিতে হয়,
.
সময় পরিবেশ পরিস্থিতি নিজের অনুকূলে না থাকলেও জীবনে এভাবে খেলে যেতে হবে!
.
বেপারটি কোন কিছু অনুকূলে ছিলো না তবুও আপনি যুদ্ধে জয় করেছেন বলে আপনি বীর উপাধি পেয়েছেন এমন
.
হাজারো সমস্যার সমাধান করতে পারার কারণে একজন সফল উদ্যোক্তার সৃষ্টি হয় না হলে আপনি কেবলি একজন সাধারণ চাকুরিজীবী!
.
১৯৭৭ সালের বেস্ট পিকচার নির্বাচিত হওয়া রকি ফিল্মের একটি ডায়লগ আছে,’আপনি কতটা শক্তভাবে জীবনকে ধাক্কা দিয়ে সামনে অগ্রগামী হওয়ার চেষ্টা করছেন ঠিক ততটাই আপনি সামনে এগিয়ে থাকার সুযোগ পাবেন!
.
তৃতীয় কম গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ নিয়ে মাশরাফি একটি সুন্দর উক্তি করেছিলেন, ‘বাংলাদেশের হয়ে টানা ১০০ ম্যাচ জিতলেও, তার পরের ম্যাচের জন্য জেতার তাগিদ একই থাকবে. তৃতীয় ম্যাচে তাই ছাড় দেয়ার প্রশ্নই উঠে না’
.
আমরা এমন এক ভাগ্যমান প্রজন্ম যারা বাংলাদেশকে শত শত ম্যাচ হারতে দেখেছি তাই বাংলাদেশ ক্রিকেট আমাদের কাছে একটি অনুপ্রেরণা,
.
কারণ,
.
আগে ভাবতাম, দেখিস একদিন আমরাও দেখিয়ে দিবো,
.
এখন দেখিয়ে দিচ্ছি পরিবেশ মাঠ আম্পায়ার থেকে শুরু করে দর্শক কিংবা ধারাভাষ্যকার আমাদের বিপক্ষে থাকলেও আমরা জিততে পারি!
.
শেখ মুজিবের সেই প্রিয় উক্তির মতো, আমাদের কেউ দাবায়া রাখতে পারবে না’
.
লিখেছেন, Abdur Rob Sharif

http://culive24.com/wp-content/uploads/2017/10/নারীর-ক্ষমতায়নঃবাংলাদেশ-প্রেক্ষাপট.jpghttp://culive24.com/wp-content/uploads/2017/10/নারীর-ক্ষমতায়নঃবাংলাদেশ-প্রেক্ষাপট-150x150.jpgculiveউদ্দীপনাখোদার কসম আমাদের শোভাকলোণীতে শুক্কুর কাক্কুর ছেলে শ্রীলংকার সাথে মাহমুদুল্লাহ ছয় হাঁকিয়ে ম্যাচ জিতার পর এমন লাফ দিয়েছে যে দুটা আঙ্গুল ভেঙ্গে ফেলেছে, . সেটা বড় কথা না, . নিজের আঙ্গুল ভেঙ্গে যাওয়ার পরও সে ইনজুরি নিয়ে খুশি মনে হাসতে হাসতে মেডিকেল গিয়েছে! . আজ সকালে সেই বাবা বাংলাদেশের খেলা নিয়ে তার ছেলের কান্ড সূচক...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University