২০১১-১২ সেশনে ভর্তি হয়েছিলাম চবির আন্তর্জাতিক
সম্পর্ক বিভাগে। সমাজবিজ্ঞান অনুষদ থেকে এই সেশনের
প্রথম বিভাগ হিসেবে স্নাতক পরীক্ষা সম্পন্ন করে ৩৭ তম বিসিএস পরীক্ষাটা দেয়ার সুভাগ্য ও হয়েছিল আমাদের।
এই অনুষদের একই সেশনের অন্য কোনো বিভাগের
শিক্ষার্থীরা এই ধরনের সুযোগগুলো পায়নি যা আমরা
পেয়েছিলাম।
এরই ধারাবাহিতায়,
২০১৫-১৬ সেশনের স্নাতকোত্তর পরীক্ষা ও সবার আগে
আমরা সম্পন্ন করতে পেরেছি।
সবার আগে ক্যাম্পাস ও ত্যাগ করতে হচ্ছে আমােদরকে!
IR ডিপার্টমেন্ট এর শিক্ষক মহোদয়দের আন্তরিকতা,
অফিস সহকারীদের আন্তরিকতায় আমরা সত্যি মুগ্ধ।
অধিকাংশ শিক্ষকই এতটাই আন্তরিক ছিলেন,
ক্লাসের ব্যাপারে অনায়েসেই উনাদের
সাথে যোগাযোগ করতে পারতাম।
ক্লাস, পরীক্ষা যেকোনো বিষয়েই আমাদের প্রতি এতটাই
আন্তরিক ছিলেন, পরীক্ষার রুটিন থেকে শুরু করে
যেকোনো বিষয়েই আমাদের যৌক্তিক যেকোনো
মতামতের গ্রহনযোগ্যতা টা পেতাম।
স্যার,
আপনাদের আন্তরিকতায় আমরা সত্যি আপনাদের প্রতি অনেক অনেক কৃতজ্ঞ।
বিশেষে করে আমাদের বর্তমান চেয়ারম্যান
ডঃ কামাল উদ্দন স্যারের প্রতি অজস্র শ্রদ্ধা।
আপনার স্বচ্চতা আর অান্তরিকতায় এই ডিপার্টমেন্ট
আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবে ভবিষ্যতে ।
স্যার কিন্তু নোয়াখালী র মানুষ 😊
নোয়াখালীর মানুষগুলো ও কর্তব্য পালনের ক্ষেত্রে
কতটা স্বচ্ছ আর আন্তরিক হতে পারে, আমাদের
চেয়ারম্যান স্যার তার জ্বলন্ত উদাহরন।
এই দিক বিবেবচনা করলে
“নোয়াখালী কে বিভাগ হিসেবে দেখতে চাই”
এই জোর দাবী জানানোই যায় 😊
কে কোন মতাদর্শের, কোন অঞ্চলের এটা কোনো
মূখ্য বিষয় না । দায়িত্বের প্রতি কে কতটা আন্তরিক, স্বচ্ছ, আর সততা বজায় রাখছে সেটাই হচ্ছে সবচেয়ে
সম্মানের।
” বর্তমানে শিক্ষিত সমাজ খুব দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে
সত্য
কিন্ত সৎ আর আন্তরিক মানুষের সংখ্যাটা কমে
যাচ্ছে ”
আমাদের র্যাগ ডে অনুষ্ঠানে সহকারি প্রক্টর হেলাল
স্যার কথাটা বলেছিলেন। কথাটা ভাল লেগেছে স্যারের।
র্যাগ ডে তে আমাদের একটা স্লোগান ছিল,
“The Last Shuttle ”
২০১১-১২ সেশনের IR ডিপার্টমেন্ট এর শিক্ষার্থী হিসেবে আমরা লাস্ট শাটলের যাত্রী হয়েগেছি,
কিন্তু সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের জন্য আন্তর্জাতিক সম্পর্ক
বিভাগ সবচেয়ে ” Fast Shuttle “. কারন আমাদের আগে এই অনুষদের অন্যকোনো বিভাগ কোনো বর্ষের
পরীক্ষাই সম্পন্ন করতে পারে না ।
এটা আমাদের জন্য গর্বের।
ভাল কিছু করলে সেটার প্রশংসা করা দোষের কিছু না,
বরং আরো ভাল করার অনুপ্রেরনা কাজ করে।
ভাল কিছু করলে , অবশ্যই প্রাপ্তি হিসেবে প্রশংসা
এক ভাবে না এক ভাবে আসবেই, এটাই স্বাভাবিক।
দয়াকরে কেউ অন্যভাবে নিবেন না বরং অন্যান্য
ডিপার্টমেন্ট এর ধীর গতিকে গতিশীল করতে
এটাকে একটা দৃষ্টান্ত হিসেবে উপস্থাপন করতে পারেন।
যাইহোক,
যাওয়ার বেলায় ডিপার্টমেন্ট এবং ডিপার্টমেন্ট এর সবার
প্রতি অসংখ্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।
কেন যে স্যাররা এত দ্রুত আমাদেরকে ক্যাম্পাস থেকে
বের করে দিলেন 😊
কত জনের কত প্রাপ্তী যে এখনো বাকী রয়েগেছে।
কত জন কতদিকে প্রপোজ করেছে কিন্তু সেটা
সাপ্লি ই থেকে গেল, ইম্প্রুভ দেয়ার আগেই ক্যাম্পাস
থেকে Log Out করার শেষ নির্দেশনা দিয়ে দিলেন
আমাদেরকে।
হতাশ আর আশাবাদী মনোভাব নিয়েই মানব জীবন।
কি আর করা, “সৃষ্টিকর্তা যা করেন, মঙ্গলের জন্যই করেন”
এই বাণীকে ধারন করে শেষমেষ বিদায় ই জানাতে হচ্ছে
অপরুপ সুন্দর্যের এই চবি ক্যাম্পাস কে।

এস এম তোফায়েল অাহমদ
সাবেক শিক্ষার্থী
আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ
সেশন ২০১১-২০১২
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

https://i0.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2017/07/FB_IMG_1500543911904.jpg?fit=552%2C414https://i2.wp.com/culive24.com/wp-content/uploads/2017/07/FB_IMG_1500543911904.jpg?resize=150%2C150culiveইন্টারভিউব্লগ২০১১-১২ সেশনে ভর্তি হয়েছিলাম চবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে। সমাজবিজ্ঞান অনুষদ থেকে এই সেশনের প্রথম বিভাগ হিসেবে স্নাতক পরীক্ষা সম্পন্ন করে ৩৭ তম বিসিএস পরীক্ষাটা দেয়ার সুভাগ্য ও হয়েছিল আমাদের। এই অনুষদের একই সেশনের অন্য কোনো বিভাগের শিক্ষার্থীরা এই ধরনের সুযোগগুলো পায়নি যা আমরা পেয়েছিলাম। এরই ধারাবাহিতায়, ২০১৫-১৬ সেশনের স্নাতকোত্তর পরীক্ষা ও...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University