ভর্তি পরীক্ষা
চবির ভর্তি পরীক্ষা চারটি ইউনিটে

ইডুকেশনের সিস্টেমের নাম দিয়ে প্রতিনিয়ত আমাদের নিয়ে খেলা হচ্ছে।
প্রথমে আসলো সৃজনশীল।সৃজনশীল মানে হলো নিজের মেধা থেকে লিখা। যাক আমরা মেনে নিলাম।রপ্ত করলাম সৃজনশীল লেখার পদ্ধতি। করতে যে কতই না কষ্ট হয়েছে সেটা আমরাই বুঝি। যারা এই পদ্ধতি প্রচলন করেছে তারা বুঝবে না আমাদের কষ্ট।তারা শুধু প্রচলন ই করেছে। নিজেদের উপর প্রয়োগ করে নি। একজন ট্রেনিং প্রাপ্ত শিক্ষকের সৃজনশীল প্রশ্ন তৈরি করতে হিমশিম খেতে হয়। আর আমাদের উত্তর দিতে কেমন লাগতে পারে। তবুও আমরা শিখে ফেললাম নিজের থেকে লিখা।
এখন আবার নতুন পদ্ধতি। নতুন পদ্ধতিতে উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হবে। যারা খাতা কাটবেন তাদের মডেল উত্তরপত্র দেয়া হবে।যাদের উত্তর ঐ মডেল উত্তরপত্রের সাথে মিলবে তারাই ভালো নাম্বার পাবে। তাহলে এইটা আর সৃজনশীল থাকলো কোন দিক দিয়ে?? এইটা তো সেই আগের পদ্ধতি ই রয়ে গেলো।
শিক্ষা পদ্ধতির নামে আমাদের সাথে একটা বাজে খেলা খেলে যাচ্ছে এরা।কিছুদিন পর পর নতুন নতুন পদ্ধতি তৈরি করে আমাদের ভালো করতে গিয়ে ক্ষতি করেই যাচ্ছে।
আমরা ২০১৭ এইচ.এস.সি ব্যাচ/২০১৫ এস.এস.সি ব্যাচ। সকল নতুন পদ্ধতি আমাদের দিয়েই টেস্ট করা হয়। জে.এস.সি তে প্রথম সৃজনশীল? আমরা।
গনিতে প্রথম সৃজনশীল তাও আমরা। এস.এস.সি তে সব সাবজেক্টস এ সৃজনশীল তাও আমরা।
ইন্টার ১ম বর্ষে ইংরেজি কারিকুলাম পরিবর্তনের নাম দিয়ে কত বার বই পরিবর্তনেরর শিকার। কত নতুন নতুন প্রশ্ন দিয়ে দিয়েছে ইংরেজির মধ্যে। স্যার দের হিমশিম খেতে হয় আমাদের শিখাতে। আমরা কিভাবে করবো সেটা নাহয় দুরেই থাক। আরো কত কিছু যে অপেক্ষা করছে আমাদের জন্য সেটা রহস্য।
.
আর কিছু বলার নাই। আমরা বাশ খেয়ে খেয়ে গর্বিত।
আমরা গর্বিত আমরা এস.এস.সি ২০১৫ ব্যাচ। আমরা আবার গর্বিত আমরা এইচ.এস.সি ২০১৭ ব্যাচ। আমরাই পারি নতুন নতুন বাঁশ হজম করতে।

culiveব্লগশিক্ষাইডুকেশন সিস্টেমইডুকেশনের সিস্টেমের নাম দিয়ে প্রতিনিয়ত আমাদের নিয়ে খেলা হচ্ছে। প্রথমে আসলো সৃজনশীল।সৃজনশীল মানে হলো নিজের মেধা থেকে লিখা। যাক আমরা মেনে নিলাম।রপ্ত করলাম সৃজনশীল লেখার পদ্ধতি। করতে যে কতই না কষ্ট হয়েছে সেটা আমরাই বুঝি। যারা এই পদ্ধতি প্রচলন করেছে তারা বুঝবে না আমাদের কষ্ট।তারা শুধু প্রচলন ই করেছে। নিজেদের...Think + and get inspired | Priority for Success and Positive Info of Chittagong University